পাইকগাছায় চেয়ারম্যান এনামুল হক করোনা মহামারিতে জনসচেতনতা ও সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য শেরে-বাংলা স্মৃতি পদকে ভুষিত সনদ ও ক্রেষ্ট প্রাপ্ত।

0
35

বি.সরকার, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি।। খুলনার পাইকগাছা উপজেলার সোলাদানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এসএম এনামুল হক করোনা মহামারিতে জনসচেতনতা ও সমাজসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় অগ্রগামী মিডিয়া ভিষন কতৃক শেরে-বাংলা স্মৃতি পদক-২০২০ ক্রেষ্ট ও সনদ সম্মানা প্রাপ্ত হয়েছেন।

তিনি বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরুর দিকে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী এলাকার জনসাধারণ কে সুরক্ষা দেওয়ার লক্ষ্যে স্বাস্থ্য সচেতনতা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার উপর ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালাতে থাকেন। উল্লেথ্য ২০২০ সালের শুরুর দিকে চীনের উহান প্রদেশ থেকে সারা পৃথিবীতে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে । ফলে প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিতে থাকে শত শত মানুষ এবং তা বৈশ্বিক মহামারীতে রূপ নেয়। একপর্যায়ে করোনার ঢেউ বাংলাদেশেও এসে পৌছায়। এ সময় তিনি সরকারী কার্যক্রমের পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগেও রেখেছেন অসামান্য ভূমিকা।

জনগনের স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে তিনি কয়েক হাজার লিফলেট ছাপিয়ে এলাকার জনসাধারণের মাঝে বিতরণ করেছেন। এলাকার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে তিনি নিজ অর্থায়নে স্থাপন করেছেন কয়েকটি করোনা সচেতনতামূলক প্যানা। এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্য সুরক্ষা দেয়ার লক্ষে তিনি নিজ উদ্যোগে শত শত মানুষের মাঝে সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেছেন। বার বার নির্বাচিত এ চেয়ারম্যান একজন তরুন এবং সুদীপ্ত প্রতিভার অধিকারী। উদীয়মান সমাজ সেবক জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি শুধু সোলাদানা ইউনিয়ন নয়, নিজ এলাকাসহ পার্শ্ববর্তি বিভিন্ন এলাকায় আম্পান ও বুলবুল পরবর্তী বিধ্বস্ত রাস্তা-ঘাট ও বেড়ীবাঁধ নিজ উদ্যোগে বেঁধে বা সংস্কার করেন। তার এই অসাধারণ কাজের জন্য সকল শ্রেনী পেশার মানুষ ভালবাসেন এবং মুল্যায়ন করেন। এসব কজের স্বীকৃতি স্বরুপ বিভিন্ন সংস্থা থেকে নানাভাবে পুরস্কৃত ক‌রেছে।

করোনা মহামারিতে একপর্যায় করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখার লক্ষ্যে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশও অনির্দিষ্টকালের জন্য লকডাউন ঘোষণা করা হয়। এসময় ঘরবন্দি হয়ে পড়ে ইউনিয়নের হাজার হাজার কর্মজীবী মানুষ। ফলে সরকারী অনুদানের পাশাপাশি তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগেও নিজ ইউনিয়নসহ আশপাশের কয়েকটি ইউনিয়নের জনসাধারণের মাঝে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করতে থাকেন।

সে সময় তিনি গভীর রাতে মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত মানুষের দুয়ারে দুয়ারে খাদ্য পৌঁছে দিয়েছেন। যার ফলশ্রুতিতে করোনা মহামারীতে জনসচেতনতা এবং সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য এবার পেলেন অগ্রগামী মিডিয়া ভিশন এর পক্ষ থেকে শেরে বাংলা স্মৃতি পদক-২০২০, ক্রেষ্ট ও সনদ সম্মানা দিয়েছেন। সোলাদানা ইউনিয়নবাসী অগ্রগামী মিডিয়া ভিষনকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here