কলমাকান্দায় ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারীর মরদেহ উদ্ধার।

0
26

রিপোর্টঃ আব্দুর রশিদ, কলমাকান্দা প্রতিনিধি।
বিস্তারিতঃ নিজ ঘরে গলায় ওড়র্না প্যাঁচানো চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারীর (২০) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (১২ আগস্ট) সকালে নেএকোণার কলমাকান্দা উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বামনগাঁও গ্রামের শান্তা আক্তারকে তার স্বামীর ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়।মৃত ওই নারীর স্বামী একই গ্রামের মোঃ আসাদ উল্লাহর ছেলে জিয়াউল ইসলাম (২৫)।মৃত শান্তা আক্তারের স্বামী ভাড়ায় অটোরিক্সা চালক।
স্হানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই নারীর স্বামী জিয়াউল ইসলাম সকাল ৬টার দিকে আদালতে হাড়িরা দেবে বলে ঘর থেকে বের হয়ে যান।সকাল ৭টার দিকে নিহত শান্তার স্বামী জিয়াউল ইসলাম এর চাচাতো ভাই মোঃ জাহিদ (৯) ঘরে উঁকি দিয়ে ঘরের আড়ের সাথে গলায় ওড়র্না প্যাঁচানো ভাবী শান্তাকে ঝুলতে দেখে।পরে বিষয়টি জানতে পারলে সাথে সাথে পুলিশ কে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।মৃতের মা মোছাঃ শেফালী আক্তার বলেন, গত দুই বছর আগে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কের পর সামাজিক ভাবে বিয়ে হয়।বিয়ের পর থেকে আমার মেয়েকে নানা ভাবে মানসিক অত্যাচার করে তাঁর স্বামী। মৃত শান্তা আক্তারের স্বামী জিয়াউল ইসলাম এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোন ধরেন মুস্তাকিম নামে দুঃসম্পর্কের মামা।মামা পরিচয়ে তিনি বলেন, মারামারির মামলায় হাজিরা দিতে আদালতে এসেছিলো। জিয়াউল ইসলাম এর জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। তাঁর মোবাইল ফোনটি আমার কাছে রেখে গেছে।জিয়াউল এর স্ত্রী মৃত্যুর কথা জানালে তিনি বলেন,শুনেছি কিন্তু এর বেশি কিছু জানিনা। মৃত শান্তা আক্তারকে ময়নাতদন্তের জন্য নেএকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।
কলমাকান্দার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাজহারুল করিম জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে এ ঘটনাটি আত্মহত্যা হতে পারে। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন প্রাপ্তির পর প্রকৃত তথ্য জানা যাবে। পরে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here