ঝিনাইদহ হুদা সুরাট গ্রামের ধর্ষিতার মায়ের উপর হামলা নিরাপত্তাহীনতা ভুক্তভোগী পরিবারঃ

0
25

মোঃ ইনছান আলী জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ ১২-০২-২১ইং গতকাল ১১/২/২১ তারিখে ধর্ষিতা হওয়া এক কিশোরীর মায়ের উপর হামলা করা হয়েছে, গত একমাস আগে ঐ কিশোরী (১৩)তার নিজ গৃহে ধর্ষিতার শিকার হন, বৃহস্পতিবার আনুমানিক রাত আটটার সময় ধর্ষিতার মা প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে অবস্থিত টয়লেটে যান, টয়লেট থেকে বের হয়ে ঘরের উদ্দেশ্যে যাওয়ার সময় আগে থেকে উৎপেতে থাকা ৪/৫ জন মুখোশীধারী তাকে ঝাপটে ধরে তারই শাড়ীর আচল দিয়ে মুখ ঠেসে ধরে লাথি ঘুষি মারে আঘাতের তীব্রতায় অচেতন হয়ে গেলে তাকে ফেলে রেখে চলে যায় মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা, ধর্ষিতার পরিবার ধর্ষক ও তার সহযোগীদের এই হামলা ঘটানোর জন্য সন্দেহ করছে, কারন হিসাবে তারা জানান মামলা নিষ্পত্তির জন্য নানান রকম ভাবে তারা হুমকি দিচ্ছিলেন।

আহত ধর্ষিতার মা ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি। পৃর্বের ঘটনায় যা জানা যায়, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সুরাট ইউনিয়নের হুদা সুরাট গ্রামের তোফাজ্জল হোসেন ও তার স্ত্রী দুজন মিলে যশোরে অসুস্থ এক আত্মীয়কে দেখতে গিয়েছিলেন বাড়িতে তার ১৩ বছরের কন্যা রেখে, তোফাজ্জেল হোসেন জানান, তারা যাওয়ার দুদিন পর স্বাভাবিক নিয়মেই ১২/০১/২১ তারিখ তার কন্যা ঘরের দরজা জানালার বন্ধ করে ঘুমিয়ে যায়, ১৩/০১/২১ তারিখ আনুমানিক রাত ২ টার সময় একই গ্রামের আলফা হোসেনের ছেলে নয়ন হোসেন টিনের ছাউনির ফাঁক দিয়ে ঢুকে জোর পূর্বক ধর্ষন ও ভিডিও ধারন করে ফেলে রেখে চলে যায়, পরদিন ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলা দায়ের করেন তোফাজ্জল হোসেন।

ধর্ষক নয়ন হোসেন কে পুলিশ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। কিন্তু তার লোকজন বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলেন মামলা তুলে নেবার জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here