দেশি ১৪৩ প্রজাতি বিলুপ্তপ্রায় মাছের জিনব্যাংক উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী।

0
24

খালেদ খুররম পারভেজ ময়মনসিংহ ঃ

ময়মনসিংহ সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০ বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএফআরআই)।দেশে এই প্রথম বিলুপ্তপ্রায় সুস্বাদু ও পুষ্টিসমৃদ্ধ দেশীয় মাছের জিন ব্যাংক স্থাপন করেছে এতে ১৪৩টি প্রজাতির দেশি মাছ স্থান পেয়েছে। আজ শনিবার সকাল ময়মনসিংহে বিএফআরআই ক্যাম্পাসে আনুষ্ঠানিকভাবে এই জিন ব্যাংক উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম। বিএফআরআই মহাপরিচালক মৎস্যবিজ্ঞানী ড. ইয়াহিয়া মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ, মৎস্য অধিদপ্তরের মহপরিচালক কাজী শামস আফরোজ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামলচন্দ্র কর্মকার, যুগ্ম সচিব তৌফিকুল। উক্ত অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী বলেন, ”মানুষের আমিষ ও পুষ্টির চাহিদা মেটাতে বর্তমান সরকার মৎস্য খাতকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। দেশের মৎস্য সম্পদের উন্নয়নের ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার অনস্বীকার্য। বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট এ ক্ষেত্রে যথেষ্ট অবদান রেখে চলছে পাশাপাশি দেশের চাহিদা মিটিয়েও বিদেশে রপ্তানি করে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে যাচ্ছে। পরে মন্ত্রীসহ অতিথিবৃন্দ বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিটের বিভিন্ন সাফল্য ঘুরে দেখেন। বিএফআরআই মহাপরিচালক মৎস্যবিজ্ঞানী ড. ইয়ািহয়া মাহমুদ জানান, দেশে মোট ২৬০টি মাছের জাত রয়েছে। এর মধ্যে এই জিন ব্যাংকে দেশীয় ১৪৩টি প্রজাতির মাছ স্থান পেয়েছে। জিন ব্যাংক স্থাপনের ফলে এই মাছগুলোর জাত এখন থেকে আর বিলুপ্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকবে না। তিনি আরও জানান, পরিবেশ এবং মৎস্যসম্পদের প্রকৃতি অনুযায়ী দেশের ১০টি এলাকায় ইনস্টিটিউটের পাঁচটি গবেষণা কেন্দ্র ও পাঁচটি উপকেন্দ্র রয়েছে। ইনস্টিটিউটের গবেষণা কার্যক্রম এসব কেন্দ্র ও উপকেন্দ্রের মাধ্যমে সম্পাদিত হয়ে থাকে। মৎস্যসম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার ও উৎপাদন বৃদ্ধির আধুনিক প্রযুক্তি উদ্ভাবন ইনস্টিটিউটের গবেষণা কার্যক্রমের মূল লক্ষ বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here