নাটোরে আ’লীগ-মহিলালীগ মিলে এমপি শিমুলের ১১ আত্মীয়- অভিযোগ স্বপনের

0
9

 

বেল্লাল হোসেন বাবু,
নাটোর জেলা প্রতিনিধি :

নাটোর জেলা আওয়ামীলীগ এমপি শিমুলের পরিবারতন্ত্রের মধ্যে আবদ্ধ বলে অভিযোগ করেছেন নব-গঠিত নাটোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিউল আযম স্বপন।

রবিবার নাটোর শহরের একটি রেষ্টুরেন্টে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন। লিখিত বক্তব্যের বাহিরে শফিউল আযম স্বপন বলেন, টাকার বিনিময়ে এমপি শিমুল বিভিন্ন সময় দলে জামায়াত-বিএনপির লোকজনদের দলে ভিড়িয়েছে। এছাড়া জেলা আওয়ামীলীগ ও মহিলা আওয়ামীলীগের তার পরিবারের অন্তত১১জন সদস্য রয়েছে।

সেগুলো হচ্ছে, শামীমা সুলতানা জান্নাতী, এমপি শফিকুল ইসলাম শিমুলের স্ত্রী এবং জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি, এমপি শিমুলের বড় ভাই শরিফুল ইসলাম শরীফ, ২০১৪সালের পূর্বে জাসদের নেতা ছিলেন, পরে নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য হয়েছে।জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাতি সীমা ইসলাম, সে শরিফুল ইসলামের স্ত্রী এবং এমপি শিমুলের ভাবি। সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, কোষাধক্ষ্য, নাটোর পৌর আওয়ামীলীগ। ২০১৪সালে পূর্বে পৌর বিএনরি সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। সাজেদুল ইসলাম সাগর, এমপি শিমুলের ছোট ভাই, বর্তমানে পৌর আওয়ামীলীগের কার্য নির্বহী কমিটির সদস্য ।

সিনথিয়া ইসলাম, সাগরে স্ত্রী, সদস্য নাটোর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ, এমপি শিমুলের বোন নাসিমা চৌধুরি, কোষাধক্ষ্য নাটোর জেলা মহিলা আওয়ামীলী। সাজেদুল ইসলাম খান চৌধুরি (বুড়া চৌধুরি) এমপি শিমুলের ভগ্নিপতি, সে বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিল, বর্তমানে জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য, মীর নাজমিন ইসলাম, এমপি শিমুলের ছোট বোন, সে সাংগঠনিক সম্পাদক, নাটোর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ,এমপি শিমুলের ভগ্নিপতি মীর আমিরুল ইসলাম জাহান, কোষাধক্ষ্য,নাটোর জেলা আওয়ামীলীগ। এক সময় নাটোর জেলা বিএনপির সদস্য ছিলনে তিনি। এবং এমপি শিমুলের ভাগ্নে মীর নাফিউল ইসলাম অন্তর, নাটোর পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। সম্প্রতি পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীকে মারপিটের কারনে দল থেকে তাকে বহিস্কার করা হয়েছে।

এক প্রশ্নের উত্তরে শফিউল আজম স্বপন জানান, স্থানীয় সাংসদ শফিকুল ইসলামের পিতা হাসান উদ্দিন সরদার ২১ নাম্বার তালিকা ভুক্ত রাজাকার। এই তালিকা এখন নাটোরের মানুষের হাতে হাতে রয়েছে। তার মেজ ভাই সিরাজুল ইসলাম সিরাজ সম্প্রতি বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগের যোগদান করা সদস্য। এক ভগ্নিপতি বিতর্কিত ঠিকাদার আমিরুল ইসলাম জাহান, জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে থাকলেও তিনি এখনো পর্যন্ত বিএনপি ডোনার বলে পরিচিত।

অপর ভগ্নিপতি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাজেদুল ইসলাম বুড়া চৌধুরী মুসলিম লীগ থেকে আসা বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি খোরশেদ আলম খান চৌধুরীর ছেলে সাজেদুল ইসলাম খান বুড়া চৌধুরী। জেলা বিএনপি’র সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য ওমর শরীফ চৌহান সাংসদের বোনের দেবর। সম্প্রতি বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। বড় ভাই সিরাজুল ইসলাম সিরাজ এর ব্যবসায়িক অংশীদার আক্কু বিহারী স্বাধীনতাবিরোধী পাকিস্তানের নাগরিক তিনিও এখন জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প বিষয়ক সম্পাদক।

সংবাদ সম্মেলনের শেষের দিকে সম্পাদক শফিউল আযম স্বপন জেলা এবং উপজেলা কমিটির সবার সাথে পরিচয় করিয়ে দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here