নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় ৫ কিশোরকে বেঁধে নির্যাতন, প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ৬

0
41

নবীন, নোয়াখালী প্রতিনিধি :

বিন্দি জাল চুরির অভিযোগে নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় ৫ কিশোরকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনকারী চৌকিদারকে আটক করেছে হাতিয়া থানা পুলিশ।

এর আগে, গতকাল সোমবার বিকেলে নির্দেশ দাতা ৫ মাতব্বরকে আটক করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। মঙ্গলবার (১৮ মে) উপজেলার চরকিং ইউনিয়ন থেকে আটক করে তাকে। পুলিশ বলছে, দুপুরের দিকে তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আটককৃত চৌকিদার আমির হোসেন (৪০), উপজেলার চরকিং ইউনিয়নের চৌকিদার এবং একই ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের হোসেন আহমদের ছেলে। থানা সূত্রে জানা যায়, গতকাল সোমবার বিকেলে গ্রেপ্তারকৃত মাতব্বর , শ্রীহরি জলদাস, নেপাল চন্দ জলদাস, বিধান চন্দ জলদাস, রায় মোহন জলদাস ও প্রিয় লাল জলদাসকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আবুল খায়ের এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় গত রোববার রাতে নির্যাতনের শিকার কিশোর পদ দাসের পিতা হরিপদ দাস বাদী হয়ে ৬জনকে আসামি করে হাতিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে। এখন পর্যন্ত ওই মামলার ৬ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত রোববার সকাল পৌনে ১১টার দিকে উপজেলার চরকিং ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ শুল্লকিয়া গ্রামের জেলেপাড়ার গ্রাম্য সালিশে কিশোর জেলেদেরকে রশি দিয়ে বেঁধে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পেটানোর এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার কিশোররা হলো, উপজেলার চরকিং ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ শুল্লকিয়া গ্রামের জেলেপাড়ার বাসিন্দা সহদেব (১৫),কিরণ (১৫),শিশুপদ, (১৬),সমূল্য (১৫), রতন (১৬)। ভিডিও ফেইসবুকে ভাইরাল হলে জেলা পুলিশ প্রশাসনের টনক নড়ে। পরে জেলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশে হাতিয়া থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক এ ঘটনায় ৫জনকে আটক করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here