মান্দায় ‘চাঁদাবাজ সুমন’ গ্রেফতার, এলাকায় স্বস্তি

0
82

আকতারুজ্জামান নওগাঁ :

নওগাঁর মান্দা উপজেলার প্রসাদপুর বাজার থেকে চাঁদাবাজি, অপহরণসহ একাধিক মামলার আসামি চাঁদাবাজ মেহেফুজুর আলম সুমন হোসেনকে (৩২) গ্রেফতার করেছে মান্দা থানা পুলিশ।

ছিনতাইয়ের একটি মামলায় রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে অভিযান চালিয়ে প্রসাদপুর বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক মেহেফুজুর আলম সুমন উপজেলার বাদলঘাটা গ্রামের মৃৃত সোলাইমান আলীর ছেলে। অভিযোগকারী শিক্ষক মনোরঞ্জন এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে বলেন, সুমন গত মার্চ মাসে (মনোরঞ্জন)এর কাকির সহযোগীতায় তেলের পাম্প থেকে পাওনা টাকা দেবার নামে মিথ্যা কথা বলে সুমন তার অ্যাপাচি বাইকে করে নিয়ে যায় তাদের এবং এক গভীর নলকূপ ঘরে আটকে দেয়। এ সময় ঘরে গিয়ে সোরাফ, লালু, মাইনুলকে দেখতে পান তিনি।

শিক্ষক মনোরঞ্জন সাহা ও তার কাকির মধ্যে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ তুলে মারপিট করে সুমন ও সুমন বাহিনীর সদস্যরা। পরে গভীর নলকূপ ঘরে তাদের জিম্মি করে শিক্ষকের বাড়িতে লোক পাঠিয়ে ব্যাংকের চেক আনিয়ে নেন তারা। এরপর তিনটি ফাঁকা চেক, ৬টি স্ট্যাম্পে ১০ লক্ষ টাকা ও পুকুর লিজ দেখিয়ে স্বাক্ষরসহ শিক্ষকের কাছে থাকা এটিএম কার্ড, পিন নাম্বার, সোনার চেন,অপ্পো মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে তাকে চৌকির নিচে ঢুকিয়ে দেয়। এরপর তার কাকি মার সাথে সুমনবাহিনী শারিরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয় বলে জানান তিনি। এসময় তার কাকিমার আচারণ সন্দেহ জনক মনে হয় তার কাছে। পরে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয় । ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় সুমনের সহযোগীদের গ্রেফতার করা হলেও প্রধান আসামি সুমন উচ্চ আদালত থেকে জামিনে ছিলেন। পুলিশ জানায়, গত মার্চে নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার মতিউর রহমানের নিকট থেকে টাকা ও মোবাইলফোন ছিনতাইয়ের মামলায় গত রোববার সন্ধ্যায় সুমনকে গ্রেফতার করা হয়।

তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ছিনতাইসহ একাধিক মামলা আছে। সুমনকে আটকের বিষয়টি জানতে পেরে একাধিক ভুক্তভোগী পরিবার থানায় এসে ভিড় জমান। ভুক্তভেগী শাকিল হোসেন,সেকেন্দার,মিজানুর রহমান,শফিকুল ইসলাম বলেন, সুমনের গ্রেফতারের খবর শুনে আমাদের থানায় আসা,আমরা তার শাস্তিসহ আমাদের বিষয়টি ওসিকে জানাতে এসেছি। সুমন আটক হওয়ায় এলাকাবাসিরা কিছুটা আনন্দিত। তারা জানান সুমন তার বাহিনী নিয়ে এলাকায় বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত। অনেকে তার ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পায়না। মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, একটি দস্যুতার মামলায় গত রোববার সন্ধ্যায় সুমনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে তার কাছ থেকে ছিনতাইকৃত মালামাল ও স্ট্যাম্প উদ্ধার করা হয় । তাকে সোমবার দুপুরে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here