ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে নিখোঁজের চারদিন পর কৃষকের লাশ উদ্ধার।

0
5
 তাপস কর,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।
আজ বুধবার ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানাধীন দিয়ারগাঁও গ্রামের বাইলনা বিল থেকে স্বপন মিয়া (৪৪)নামে জনৈক কৃষকের লাশ নিখোঁজের চারদিন পর উদ্ধার করেছে পুলিশ।পাগলা থানার ওসি মোঃ শাহিনুজ্জামান খান জানান,হত্যা কান্ডের ঘটনার সাঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে নিহতের ছোট ভাই শহীদ মিয়াকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানায়,পাগলা থানাধীন উস্থি ইউনিয়নের সান্জিব গ্রামের মন্তাজ মিয়ার ছেলে স্বপন মিয়ার সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ ছিল তারই সহোদর ছোট ভাই শহীদ এবং চাচাতো ভাই সানজিব গ্রামের হেলিমের ছেলে বাবুলের।নিয়ে রোববার সকালে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম তোতাকে মধ্যস্থতায় স্বপন মিয়ার বাড়ির কাছে জন্য সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় ।এর পর সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বের হয়ে পাঁচবাগ ছোট বাজার মোড়ে গিয়ে আর ফিরে আসেননি স্বপন।পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করে রাত স্বপনকে না পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম তোতাকে বিষয়টি অবহিত করে।এদিকে বুধবার সকালে বাবুলের ফিশারীরর পাশে বাইলন্যা বিলে স্বপন মিয়ার ক্ষত বিক্ষত লাশ দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী পাগলা পুলিতে খবর দেন দুপুরে পাগলা থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। নিহতের ছেলে আলমগীরের অভিযোগ,সালিশে আমার বাবাকে চাচা শহিদ ও বাবুল খুন করার হুমকী দিয়েছিল।নিখোঁজ হওয়ার আগে রোববার রাতে পাঁচবাক ছোট মোড়ে একটি চা’য়ের দোকানে তার পিতাকে সর্বশেষ দেখতে পায়।এই দোকানের পাশে সংঘবদ্ধভাবে বেশ কয়েকজন লোক দাড়িয়ে ছিল। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম তোতা জানান, নিহত স্বপন মিয়ার সঙ্গে তার ভাইদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল।সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে এ বিরোধ মিমাংসা করে দেওয়া হয়েছিল। বুধবার এই বিষয়ে রেজেষ্ট্রি দলিল হওয়ার কথা ছিল।
Taposh Kor

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here