ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের সম্প্রসারিত সড়কের বেহাল-দশা।

0
11

তাপস কর,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের সম্প্রসারিত ওয়ার্ডের বেশিরভাগ সড়কের বেহাল দশা। খানাখন্দে ভরা ওয়ার্ডগুলোর বেশিরভাগ সড়কেই বৃষ্টি হলে চলা যায় না। সম্প্রসারিত ওয়ার্ডের কয়েকটি এলাকায় মৌসুমি জলাবদ্ধতাও এখানকার নাগরিকদের তীব্র দুর্ভোগের কারণ হয়ে উঠেছে। পানিবাহিত রোগ সংক্রমণের আশঙ্কায় এসব এলাকার পানিবন্দি অনেক পরিবার বসতঘর ফেলে এরই মধ্যে চলে গেছে অন্য কোথাও। তবে সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু জানান, সম্প্রসারিত নতুন ওয়ার্ডগুলোর জন্য একাধিক উন্নয়ন প্রকল্প স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে নাগরিকদের ভোগান্তি দূর হবে। তবে এ জন্য আগামী বর্ষা শুরুর আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের সম্প্রসারিত ওয়ার্ডের একটি হচ্ছে রঘুরামপুর, চর ঝাউগড়া ও শম্ভুগঞ্জ বাজার নিয়ে গঠিত ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড। ময়মনসিংহ সিটির রাজস্ব আয়ের একটা বড় অংশ যোগ হয়েছে এই ওয়ার্ড থেকে। শুধু শম্ভুগঞ্জ বাজার থেকেই বছরে দুই কোটি টাকার বেশি রাজস্ব যুক্ত হয়েছে সিটির তহবিলে। অথচ এ ওয়ার্ডের প্রায় সবক’টি সড়কেরই বেহাল দশা। সরেজমিনে চর ঝাউগড়া থেকে শম্ভুগঞ্জ বাজার, রঘুরামপুর ও সবজিপাড়া ঘুরে দেখা গেছে, সড়কের মাঝখানে বড় বড় গর্ত হাঁ করে রয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, এক বছর ধরে এ দশা সড়কের। সিটি কর্তৃপক্ষ এসব সড়ক মেরামতে কোনো উদ্যোগ নেয়নি। চর নিলক্ষীয়ার সাবেক ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান মানিক জানান, সিটিভুক্ত হওয়ায় তাদের কর তিনগুণ বেড়েছে। কিন্তু কোনো সেবাই মিলছে না। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, আগে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ৩০০ টাকায় ট্রেড লাইসেন্স পাওয়া যেত, এখন সিটি হওয়ায় সেই ট্রেড লাইসেন্স পেতে গুনতে হচ্ছে ৮০০ টাকা! অথচ সম্প্রসারিত এ ওয়ার্ডে কোনো নাগরিক সুবিধা নেই। যোগাযোগ ব্যবস্থা গ্রামের চেয়েও খারাপ। জলাবদ্ধতাও নিত্যসঙ্গী। ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের শম্ভুগঞ্জ বাজারের গোহাটা এবং চামড়াবাজার এলাকার মানুষ গত ছয় মাস ধরে পানিবন্দি। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছে এসব একাধিকবার জানিয়েও কোনো কাজ হয়নি বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। গত বর্ষার আগে স্থানীয় সরকার বিভাগ-এলজিইডি চর ঝাউগড়া ও রঘুরামপুর সড়কের মেরামত ও উন্নয়ন কাজ করেছিল। এসব সমস্যার সমাধান না মেলায় স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে দায়ী করছেন অনেকে। তবে ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহজাহান মনির মানুষের এ দুর্ভোগের জন্য এলাকাবাসীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করে জানান, আগামী বর্ষার আগেই দীর্ঘদিনের এসব সমস্যার সমাধান করা হবে। বেহাল দশার সড়ক যোগাযোগ আর জলাবদ্ধতার সমস্যা রয়েছে সিটির সম্প্রসারিত ৩১ ও ৩২ নম্বর ওয়ার্ডসহ ১২টি ওয়ার্ডেই। ১২টি সম্প্রসারিত ওয়ার্ডসহ ৩৩টি ওয়ার্ড নিয়ে আট লক্ষাধিক জনসংখ্যা অধ্যুষিত সাবেক ময়মনসিংহ পৌরসভাকে সিটি করপোরেশনে উন্নীত করা হয় ২০১৮ সালে। শম্ভুগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা মোখলেছুর রহমান বলেন, সিটি করপোরেশন হওয়ায় ট্যাক্স বেড়েছে। কিন্তু বাড়েনি কোনো সুযোগ-সুবিধা। আমরা চাই, সম্প্রসারিত এলাকায় যেন দ্রুত কাজ শুরু করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here