সাভারে ৬ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ, কৌশলে আসামি ধরলো পুলিশ

0
7

 উজ্জ্বল হোসাইনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক সাভার সদর ইউনিয়ন ধরেন্ডা এলাকায় চকলেট-বিস্কুট খাওয়ানোর কথা বলে ৬ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ঐ এলাকার খৃষ্টান সম্প্রদায়ের এক চা দোকানদারের বিরুদ্ধে।

২১ এপ্রিল সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাজিউর রহমান। এর আগে গত ১৫ এপ্রিল দুপুর দু’টার দিকে সাভার সদর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড ধরেন্ডা গ্রামে এঘটনা ঘটে। এঘটনায় আজ দুপুরে সাভার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার। অভিযুক্তের নাম সমর রোজারিও (৫৫), তিনি একই এলাকার মৃত সিলভীস্টার রোজারিওর ছেলে। প্রায় দুই বছর ধরে ভুক্তভোগীর ভাড়া বাসা সংলগ্ন চা ও প্লাষ্টিক সামগ্রীর দোকান করে আসছিলেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ এপ্রিল দুপুরে বাসার সামনে খেলাধুলা করছিলো ভুক্তভোগী শিশু। এসময় সমর রোজারিও ওই শিশুকে চকলেট, বিস্কুট খাওয়ানোর কথা বলে তার দোকানের ভিতরে নিয়ে তার হাতে স্মার্ট ফোন দেয়। স্মার্ট ফোন পেয়ে বাহিরে আসার চেষ্টা করলে সমর রোজারিও তার দোকানের সাটার বন্ধ করে ভুক্তভোগীর মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে। এসময় তার যৌনাঙ্গ দিয়ে রক্তক্ষরণ হয়। পরে বিষয়টি কাউকে জানালে শিশুকে হত্যার হুমকি দিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দেয়। ভয়ে ভুক্তভোগী শিশু বিষয়টি গোপন রাখে। কিন্তু পরের দিন আবার অভিযুক্ত ভুক্তভোগীর বাড়ির সামনে গিয়ে শিশুকে ডাকাডাকি করে। এসময় ওই শিশুর ভাবি ভুক্তভোগী শিশুকে ডাকাডাকি করার কারন জানতে চাইলে বিভিন্ন প্রকার হুমকী ধামকী দিয়া সেখান হতে দ্রুত চলে যায় অভিযুক্ত।

বিষয়টি শুনে ভুক্তভোগীর মা মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘটনা খুলে বলে। পরে এব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীর পরিবার। এব্যাপারে সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক এসআই নাজিউর রহমান জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর থেকে অভিযুক্তকে আটক করা হয় রাতে । একই সাথে ভুক্তভোগী শিশুকে তার স্বাস্থ্য পরিক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠার প্রস্তুতি চলছে। অভিযোগের সাথে সাথে ব্যাবস্থা গ্রহন ও কৌশলে দ্রুত আসামি গ্রেফতার হওয়ায় সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, থানার উপ-পরিদর্শক নাজিউর রহমানসহ পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ধরেন্ডাবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here