কানাডায় সব ধরনের আইন প্রয়োগ করেও কমানো যাচ্ছেনা করোনার সংক্রমন

0
6

মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউয়ে কানাডায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা কমছে না বরং উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে। বিভিন্ন প্রদেশে ক্রমবর্ধমানহারে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

বিভিন্ন প্রদেশের স্থানীয় নীতিনির্ধারকরা নানা বিধিনিষেধ আরোপ করছে। এসব বিধিনিষেধ শুধু অফিস-আদালতেই সীমাবদ্ধ নয়।
সামাজিকভাবে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে স্থানীয়দের একে অপরের বাড়িতে কম যাতায়াত এবং যথাসাধ্য মাস্ক ব্যবহারের আহ্বান জানানো হচ্ছে।
একদিকে শীতের প্রকোপ অন্যদিকে করোনা ভাইরাসের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। তবুও প্রতীক্ষিত ভ্যাকসিন আর সুদিনের অপেক্ষায় কানাডাবাসী।

কানাডার প্রধান চারটি প্রদেশ অন্টারিও, ব্রিটিশ কলম্বিয়া, আলবার্টা এবং কুইবেকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রবলভাবে বাড়ছে। আর করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে হাসপাতাল, নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে চাপও ব্যাপকহারে পড়ছে।

অন্টারিওর বিভিন্ন সিটিকে ইতিমধ্যে রেড জোনের আওতাভুক্ত করা হয়েছে। যেখানে সীমিতসংখ্যক লোকজন চলাচল এবং প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়ায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

কানাডার প্রধান জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: থেরেসা ট্যাম কানাডিয়ানদের সতর্ক করে বলেছেন, কানাডায় যে অনুপাতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তাতে করে ডিসেম্বরের প্রথম দিকে প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে। বর্তমানে প্রতিদিনের সংখ্যার তুলনায় তা দ্বিগুণেরও বেশি।

 

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ হাজার ২৬৫ জন, আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ১৫ হাজার ৭৫৪ জন, এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৫২ হাজার ২৯৪ জন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here