বরগুনায় অপারেশনের সময় জেলা ছাত্রলীগের নেতার মায়ের মৃত্যু

0
24

বরগুনা প্রতিনিধি:

বরগুনা শহরের কলেজ রোডে অবস্হিত মর্ডান সেন্টাল হাসপাতালে গতকাল(১৬ সেপ্টেম্বর) বুধবার সন্ধায় বিউটি বেগম (৫০) নামের এক গৃহবধূর জরায়ু টিউমার অপারেশনের জন্য এ্যানেসথিয়া দিয়ে অজ্ঞান করে অপারেশনের পর অপারেশন থিয়েটারে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানাগেছে। সেন্টাল হাসপাতাল ও পুলিশের সুত্র থেকে জানাগেছে, বরগুনা পৌর শহরের চরকলোনী এলাকার মৃতঃ নজরুল ইসলামের স্ত্রী জরায়ু টিউমার অপারেশনের জন্য গতকাল দুপুরে ঐ হাসপাতালে কর্মরত নার্স বিউটি বেগমের পুত্রবধু তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন। সন্ধা ৭ টার দিকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে ডাঃখায়রুল ইসলাম তাকে ইনজেকশন (এ্যানেসথিয়া) দিয়ে অজ্ঞান করার পরে সিভিল সার্জন ডাঃ হুমাউন শাহিন খান বিউটি বেগমের জরায়ু টিউমার অপারেশন করেন। দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হবার পরেও জ্ঞান ফিরে না আসায় চিকিৎসক তাকে মৃতঃ ঘোষনা করেন। এ ব্যাপারে সিভিল সার্জন ডাঃ হুমাউন শাহিন খান বলেন,খুবই দুঃখজনক বিষয়টি,তবে অজ্ঞান অবস্হায়ই সম্ভবত তার হ্রতযন্রের ক্রীয়া বন্ধ হয়ে মূত্যু হয়েছে। খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্হলে উপস্হিত হয়। বিউটি বেগমের পরিবার এ সময় পুলিশ ও সাংবাদিকদের নিকট বলেন,বিউটি বেগম আগে থেকেই অসুস্হ ছিলেন।বিউটি বেগমের পুত্রবধু নার্স ইভা আক্তার বলেন,তার শ্বাশুরী অসুস্থ ছিলেন। অপারেশনের সময় তিনিও অপারেশন থিয়েটারে উপস্হিত ছিলেন বলে জানান। মৃত বিউটি বেগম বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের উপ স্কুল ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নাঈমুর রহমান নাঈম এর মা। নাঈমুর রহমান নাঈম এর মায়ের অকাল মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সকল নেতৃবৃন্দ। বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম বলেন,সংবাদ পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে জানতে পারি অপারেশনের জন্য অজ্ঞান করার পরে বিউটি বেগমের জ্ঞান ফিরে আসেনী। লাশ উদ্বার করে তার পরিবারের কাছে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান। এ ব্যাপারে বিউটি বেগমের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেলে যথাযথ ব্যাবস্হা নেবার কথা বলেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here