এখন লকডাউনকে ভয় পাই না, পেটের ক্ষুধা কে ভয় পাই,আমার কর্মসংস্থান কুয়াকাটা খুলে দাও

0
15

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, কুয়াকাটা- কলাপাড়া (পটুয়াখালী):-

লকডাউন আমাদের জীবনকে ছন্দ পতন ঘটিয়েছে, যার কারণে এখন নিজে ছোট ব্যবসাটি ধুলো জমে আছে। বাংলাদেশের দক্ষিণ অঞ্চলের বরিশাল বিভাগের অন্যতম পর্যটন আকর্ষন সাগরকন্যা খ্যাতো কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত।

করোনা ভাইরাসের কারনে গতো পহেলা এপ্রিল থেকে সারা বাংলাদেশের পর্যটন কেন্দ্র গুলো লকডাউন ঘোষণা করেন সরকার,ধিরে ধিরে করোনা পরিস্থি একটু সাভাবিকের দিকে গেলে কম সবশি সব সেক্টরে সাস্থবিধি মেনে সিমিত আকারে খুলে দেয়া হলেও পর্যটন কেন্দ্র গুলো বন্ধ রয়েছে তারি ধারাবাহিকতায় কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্রে সাস্থবিধি মেনে পর্যটকরা যাতে নিরাপদে কুয়াকাটা ভ্রমণে আসতে পারে এবং সাস্থবিধি মেনে পর্যটন সংশ্লিষ্ট সকল ব্যাবসায়ীরা পর্যটকদের সেবা দিতে পারে এর দাবিতে মানববন্ধন আয়োজন করা হয় কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের জিরো পয়েন্ট সকল ব্যবসায়ীদের অংশগ্রহনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পর্যটন নগরী কুয়াকাটার স্থানীয় ব্যবসায়ীরা সব সময়ী ট্যুরিস্ট নির্ভর গতো বছর করেনা লাকালীন সময়ও কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ছিলো এক পর্যায় সাস্থবিধি মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে পর্যটকদের সেবার দেয়া জন্য পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেয়া হয়।গতো বছরের করোনা কালীন সময়ে ব্যবসায়ীরা আর্থিক ক্ষতি কাটিয়ে না উঠতেই আবার এবছর হঠাৎ করে গতো পহেলা এপ্রিল লকডাউন ঘোষণা করেন সরকার। তাই লকডাউনের প্রায় দুই মাসের কাছাকাছি পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ থাকলেও খোলার ব্যাপারে এখনো কোন সিদ্ধন্ত না হওয়ায় ট্যুর অপারেটর এসোসিয়েশন অব কুয়াকাটা টোয়াকের আয়োজনে কুয়াকাটা হোটেল মোটেল রেস্তোরাঁ মালিক ম্যানেজার সহ পর্যটন ব্যবসার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন।

এসময় মানববন্ধনে উপস্থিত ট্যুর অপারেটর এসোসিয়েশন অব কুয়াকাটা টোয়াকের সেক্রেটারি জেনারেল আনোয়ার হোসেন আনু কুয়াকাটার ব্যবসায়ীদের ভিবিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন, কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কাজি সাঈদ বলে সাস্থবিধি মেনে কুয়াকাটায় পর্যটক আসতে পারে এবং স্থানীয় ব্যবসায়ীরা পর্যটকদের সেবা দিতে পারে তার জোর দাবি জানাচ্ছি,কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি নাসির উদ্দীন বিপ্লব বলেন দেশের সব সেক্টর সাস্থবিধি মেনে সিমিত আকারে খুলে দেয়া হলেও বন্ধ রয়েছে পর্যটন কেন্দ্র তাই সরকারের কাছো দাবি জানাচ্ছি কুয়াকাটার সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করে সাস্থবিধি মানা শর্তে পর্যটন কেন্দ্র খুলে দিলে আর্থিক ক্ষতি থেকে রক্ষা পাবে স্থানীয়রা। মানববন্ধনের সভাপতিত্ত করেন ট্যুর অপারেটর এসোসিয়েশন অব কুয়াকাটা টোয়াকের প্রসিডেন্ট রুমান ইমতিয়াজ তুষার তিনি বলেন গতো বছর করোনা কালীন সময়ে আমরা ভিবিন্ন ট্রেনিং এর মাধ্যমে সাস্থবিধি মেনে পর্যটকদের সেবা দিয়েছি এবং পর্যটকদেরকে সাস্থবিধি মানার ব্যাপারে উৎসাহিত করেছি আশা করি সরকার দেশের অর্থনীতির কথা ভবে বাংলাদেশের অন্য তম বৃহত্তর পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটাতে কুয়াকাটার পর্যটন কেন্দ্র খুলে দিবে।

মানববন্ধন অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করবেন কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহিরুল ইসলাম মিরন। শনিবার বিকাল ৪ টায় কাুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের জিরো পয়েন্টে সাস্থবিধি মেনে পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেয়ার দাবিতে পর্যটন সংশ্লিষ্ট সকল ব্যবসায়ী সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তি বর্গ ও গনোমাধ্যম কর্মীরা মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here