নাটোরে নানা অব্যবস্থাপনায় শুরু হয়েছে মাসব্যাপী বিসিক-ঐক্য স্বাধীনতা মেলা!

0
5

মোঃ কামাল মাহামুদ বাগাতিপাড়া,(নাটোর) প্রতিনিধিঃ

নানা অব্যবস্থাপনার মধ্যেই নাটোরে শুরু হয়েছে মাসব্যাপী বিসিক-ঐক্য স্বাধীনতা মেলা। নাটোর বিসিকের আয়োজনে গতকাল শুক্রবার দুপুর থেকে শহরতলীর দত্তপাড়ায় এই মেলার উদ্বোধন করা হয়।

তরিঘরি করে আয়োজন করায় মেলার স্টল ছিল অপ্রতুল। এছাড়া বিসিক মালিক সমিতির সাথে সমন্বয় না থাকায় মেলায় বিসিক শিল্প কারখানায় তৈরী পন্যের স্টল নাই বললেই চলে। এছাড়া মেলায় আমন্ত্রণ জানানো হয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের। আমন্ত্রণ জানিয়েই দায় সেরেছে বিসিক কর্তৃপক্ষ। সাংবাদিকদের বসার স্থান ছিল না। প্রখর রোদে দাঁড়িয়ে সংবাদ সংগ্রহ করেন সাংবাদিকরা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা শেষে অন্য অতিথিদের নিয়েই ব্যস্ত হয়ে পড়েন বিসিকের উপ-ব্যবস্থাপক দিলরুবা দিপ্তীসহ অন্যান্যরা। সাংবাদিকদের নুন্যতম দেখভাল করার প্রয়োজনীয়তা বোধ করেনি কেউ। বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) এর জেলা সংবাদদাতা ফারাজী আহম্মদ রফিক বাবন বলেন, এটা আসলে দৃষ্টিভঙ্গি ও আচার আচরণের ব্যাপার। আমন্ত্রণ জানিয়ে এমন আচরণের মাধ্যমে বিসিক কর্তৃপক্ষ তাদের দৃষ্টিভঙ্গির বহিঃপ্রকাশই ঘটিয়েছেন। যা মোটেও কাম্য ছিল না। নাটোর প্রেসক্লাবের সভাপতি জালাল উদ্দিন জানান, গণমাধ্যমকর্মীদের আমন্ত্রণ জানিয়ে এমন আচরণ করা ঠিক হয়নি। বিসিক কর্তৃপক্ষের উচিত ছিল আরও দায়িত্বশীল হওয়া।

এই আচরণের তীব্র নিন্দা জানাই। বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের নাটোর প্রতিনিধি নাসিম উদ্দিন নাসিম জানান, সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ জানিয়ে এমন আচরণ করা মোটেও কাম্য নয়। ইতিপূর্বেও বিসিকের উপ-ব্যবস্থাপক দিলরুবা দিপ্তীর নানা অনিয়ম আমরা তুলে ধরেছি। নানা অনিয়ম করে পার পেয়ে যাওয়ার কারণেই তিনি এমন অশোভন আচরণ করার সাহস পান। তার খুটির জোর কোথায় এটা খুঁজে বের করতে হবে। বিসিক মালিক সমিতির সভাপতি প্রদীপ কুমার আগারওয়ালা জানান, আসলে মেলার আয়োজন করেছে বিসিক কর্তৃপক্ষ। সেজন্য মালিক সমিতি মেলা দেখভালের দায়িত্বে নেই। সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ জানানো বা মেলায় কোন অব্যবস্থাপনার বিষয়টি সম্পর্কে মালিক সমিতি অবগত নয়। নাটোর বিসিকের উপ-ব্যবস্থাপক দিলরুবা দিপ্তী জানান, সাংবাদিকদের দেখভাল করা উচিত ছিল।

এটা আমাদের ভুল হয়েছে। আসলে ভিআইপিদের নিয়ে এতো ব্যস্ত ছিলাম। আপনাদের দিকে নজর দিতে পারিনি। মেলা আয়োজনের দায়িত্ব এক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে দেওয়ায় বিষয়টি অগোছালো হয়েছে বলে জানান তিনি। মাসব্যাপী মেলাটি উদ্ধোধন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল। এসময় জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ, বিসিকের আঞ্চলিক পরিচালক জাফর বাইজিদ, এফবিসিসি আইয়ের পরিচালক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান উপস্থিত ছিলেন। এবারের মেলায় স্থানীয় বিসিক শিল্প নগরীর ৭০টি স্টল স্থান পেয়েছে। মেলায় স্টল খোলা থাকবে সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here