পাটনীগাঁওবাসীর রাস্তা সংস্কারের দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান

0
9

সাইফুল ইসলাম, শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুর সদর উপজেলার পালং ইউনিয়নের পাটনীগাঁও এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত দাবী করে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি করেছে।

গ্রামের একমাত্র রাস্তাটি সংস্কারের দাবীতে এ কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। বুধবার(০২জুন) সকাল ১০ টায় শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গনে শতাধিক গ্রামবাসী মানববন্ধন করে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বিকাশ মন্ডল, উত্তম মন্ডল, মিঠুন মন্ডল, কামাল খান, পলাশ চন্দ্র, সুজন মন্ডলসহ আরও অনেকে। এসময় বক্তারা বলেন, আমাদের অভিযোগ ছয়শত পরিবারের চলাচলের জন্য বৃক্ষতলা থেকে তেলীবাড়ি পর্যন্ত গ্রামীণ রাস্তাটি দীর্ঘদিনেও সংস্কার হয়নি। তার উপর রাস্তাটির নেই কোনো শাখা রাস্তা। গ্রামীণ রাস্তাটি ইটের সোলিং দিয়ে তৈরী হলেও বন্যা, ভারী বর্ষণ ইত্যাদি কারণে বর্তমানে করুণ দশা।

এ রাস্তা দিয়ে পাটনীগাঁও, ধামসী, চাঁদসার, সিঙ্গাচুড়া সহ আশেপাশের গ্রামের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা ধামসি-পাটনীগাঁও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়তে যায়। কিন্তু শিক্ষার্থীরা রাস্তা ভাঙা হওয়ার কারণে পড়ে গিয়ে আহত হয় বলে অধিকাংশ সময় ঝড়ে পড়ে। কষ্ট করে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত পড়লেও গ্রামে কোনো উচ্চ বিদ্যালয় না থাকায় শিক্ষার্থীরা ষষ্ঠ শ্রেণীতে শহরে পড়তে যেতে চায় না ভাঙা রাস্তাটি পায়ে হেটে। যার কারণে পাটনীগাঁওর শিক্ষার হার ক্রমাগত হ্রাসের দিকে, যা উদ্বেগজনক। তাছাড়া গ্রামটিতে একটি কমিউনিটি ক্লিনিক থাকলেও তা অধিকাংশ সময় বন্ধ থাকে বিধায় প্রেগন্যান্টসহ ইমার্জেন্সী রোগীরা হাসপাতালে যেতে পারে না, ফলে ঘটে দুর্ঘটনা।

রাস্তাটির কারণে রাস্তাটির কারণে ধানসহ অন্যান্য ফসলের ন্যায্য দাম পাচ্ছে না কৃষকরা, ফরিয়ারা এসে প্রতিমণে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা কম দাম দিয়ে ফসল নিয়ে যায়। এলাকায় কোনো অঘটন ঘটলে থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস আসতে পারে না। এলাকাটির অধিকাংশ পরিবার হিন্দু হওয়ায় এখানে প্রতিবছর নাম কীর্তন হয় কিন্তু দূরের কোনো অতিথি আসতে পারে না। রাস্তাটির কারণে আমরা ছেলে-মেয়ে বিয়ে দিতেও বাধা পাচ্ছি। যাতায়াতে অসুবিধা বলে আমাদের গ্রামে কেউ আত্মীয়তাও করতে চায় না। এসময় বক্তারা প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে রাস্তাটির সংস্কারের দাবিও জানান।

রাস্তাটির বিষয়ে জন প্রতিনিধি, সরকারী কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, ভিলেজ রাস্তা রিপেয়ারিং এর অন্তর্ভূক্ত নয় রাস্তাটি, ভিলেজ রিপেয়ারিং এর অন্তর্ভূন্ত না হওয়ায় রাস্তাটি করা সম্ভব হচ্ছে না আমাদের পক্ষে। এমতাবস্থায় আমরা সর্বশেষ আপনার দ্বারস্থ্য হয়েছি, একমাত্র আপনার হস্তক্ষেপই পারে আমাদের রাস্তাটি সংস্কার করে আমাদের গ্রামের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ সকল প্রকার সমস্যা দূর করতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here