বাঘায় আদর্শ যুব সংঘের উদ্দোগে অসহায় পরিবারের মাঝে রমজানের উপহার সামগ্রী বিতরণ

0
27

রবিউল ইসলাম,রাজশাহী প্রতিনিধিঃ

করোনা কালীন সময়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো ও সহযোগীতা করা, যুবকদের নৈতিক উন্নয়ন ও সামাজিক অবক্ষয় থেকে রক্ষা করা এবং যুবকদের সামাজিক কাজে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার তেঁথুলিয়ায় আদর্শ যুব সংঘ নামের একটি সামাজিক সংগঠনের পথচলা শুরু হয়েছে।

তেঁথুলিয়া বাজারে স্থানীয় কয়েকজন কলেজ পড়ুয়া বন্ধু একত্রিত হয়ে এ সংগঠন পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহন করেন। গত বুধবার (১৪ এপ্রিল) নাজমুল হাসান নীরব এর উদ্দোগে পারভেজ মোশারফ কে হিসাব রক্ষক ও মেহেদী হাসান তানিম কে সভাপতি করে কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়। সংগঠনের কার্যক্রম আরো গতিশীল করতে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃত্বে তিনটি সহযোগী কমিটি গঠন করা হয়েছে। হাট পড়া কমিটির সহ-সভাপতি রিমন বিন মালেক ও কোষাধ্যক্ষ তানজিম হক। নওদাপাড়া কমিটির হিসাব রক্ষক পারভেজ মোশারফ ও কোষাধ্যক্ষ জিসান আহম্মেদ।

সরকার পাড়া কমিটির হিসাব রক্ষক শান্ত ইসলাম ও কোষাধ্যক্ষ নাজমুল হাসান নীরব। উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্তে অন্যান্য কমিটির সকল কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এছাড়াও এই সংগঠন পরিচালনার জন্য রয়েছেন সুদক্ষ উপদেষ্টা পরিষদ। এ পরিষদের সদস্য বৃন্দরা হলেন, মুফতি সেলিম রেজা, সাইফুল ইসলাম টগর অধ্যক্ষ শরিফাবাদ মহাবিদ্যালয়, মোজাম্মেল হক সদর অধ্যক্ষ তেঁথুলিয়া পীরগাছা টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজ , আব্দুল আওয়াল প্রধান শিক্ষক তেঁথুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় , জারজিস হোসোন প্রধান শিক্ষক তেঁথুলিয়া সরকারি প্রাঃ বিদ্যালয়, ছানাউল রহমান (বিদ্যুৎ) শিক্ষক, আব্দুল হামিদ সরকার শিক্ষক ও রোকনুজ্জামান প্রমুখ। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ নাজমুল হাসান নীরব বলেন, গত ১০ দিনের পরিশ্রমের মাধ্যমে আজকে আমরা ২৬ টি অসহায় পরিবারের মাঝে পবিত্র মাহে রমজানের উপহার সামগ্রী বিতরণ করতে সক্ষম হয়েছি। মাত্র ১০ দিনে একটি সংগঠন গড়ে তুলে তারপর এলাকার মানুষদের বিশ্বস্ততা অর্জন করে, আর্থিক সাহায্য সংগ্রহ করে তা অসহায় মানুষদের মাঝে পৌছে দেয়াটা সত্যিই একটা চ্যালেঞ্জিং বিষয় ছিলো।

কিন্তু আলহামদুলিল্লাহ আমরা তাতে সফল হয়েছি। আর তা সম্ভব হয়েছে সংগঠনের সক্রিয় কর্মীদের পরিশ্রম ও সুদক্ষ উপদেষ্টা মণ্ডলীবৃন্দের সহযোগিতায়। সংগঠনটির উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য অধ্যক্ষ সাইফুল ইসলাম টগর বলেন,নতুন সংগঠন হিসেবে আমাদের ছেলেদের বাঁধার সম্মুখীন হতে হয়েছে। বিভিন্ন রকম নেগেটিভ রেসপন্স এর সম্মুখীন হতে হয়েছে। কিন্তু এই ছেলে গুলা দমে যায় নাই। একটা ধাপে বাঁধা পেলেও তাঁরা আরো দশ ধাপ এগিয়ে গেছে শুধু অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াবে বলে। রোযা রেখে বাড়ির সব কাজ করেও তাঁরা সংগঠনের পেছনে সময় দিয়েছে ।

যখন যে কাজটা করতে পরামর্শ দিয়েছি তারা সেটাই করে দেখিয়েছে । উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক সদর বলেন, কে বলে আমাদের যুব সমাজ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এই যুবকদের মাধ্যমেই একদিন সমাজ থেকে সকল অন্যায় অবিচার দূর হয়ে যাবে। এরাই পারবে সকল ভেদাভেদ ভুলে মানুষের কল্যাণে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে। আদর্শ সমাজ গড়তে এরাই হবে প্রধান হাতিয়ার । এরাই পারবে আদর্শ যুব সংঘ কে অনেক দূর পর্যন্ত এগিয়ে নিয়ে যেতে। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মেহেদী হাসান তানিম এই আদর্শ যুব সংঘের সকল কার্যক্রমে যে সকল শুভাকাঙ্ক্ষী, ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান অসহায়ের পাশে দাঁড়াতে বিভিন্ন ভাবে আমাদের সংঘকে সাহায্য ও সহযোগীতা করেছেন। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here