বাঘায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত,দোকান লুট

0
22

রবিউল ইসলাম,(রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার বাউসা খাগড়বাড়ীয়া ২ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি আজরাইল মন্ডল ( ২৮),পিতাঃনাজিম মন্ডল ও তার ব্যবসায়ীক পার্টনার বুলবুল আহম্মেদ কে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে মারাত্মক ভাবে আহত করে শো-রুম ( উল্কা গাড়ীর) ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার ( ১৬ এপ্রিল) সন্ধ্যা আনুমানিক ৭ ঘটিকায় উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের খাগড়বাড়ীয়া রাজমনি বাজারে ছাত্রলীগ নেতা আজরাইল ও বুলবুলের যৌথ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান “মেসার্স বন্ধু অটো মোটরস্”এ এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সারাদিন রোজা রাখার পর ইফতারি শেষে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আজরাইল ও বুলবুল বসে থেকে সারাদিনের ক্রয়-বিক্রয়ে হিসাব করছিলেন।এমন সময় অসতর্ক মুহূর্তে আশিক(৩০),পিতাঃ নাসির,সাং নূর নগর, বদিউর রহমান (৩৫), পিতাঃমৃত নবির উদ্দিন, সাং খাগড়বাড়ীয়া, হিমেল(৩০),পিতাঃহোসেন কুলি, সজল(৩০), পিতাঃসেকেন্দার আলী, জুয়েল(২৫), পিতাঃ সাবান আলী, মানিক(২২) পিতাঃনাজিম, সুজা (৩৫),পিতাঃসাবাজ,রাজিব(২৮) পিতাঃমুস্তাকিন সর্বসাং নূর নগর থানা বাঘা,জেলা রাজশাহীগন লাঠি,লোহার রড,হাতুড়ি, হাঁসুয়া দিয়া আজরাইল কে মারপিট করতে শুরু করে এবং গুরুত ভাবে আহত করে। আজরাইল এর বন্ধু বুলবুল বাধাদিলে তাকেও তারা এলোপাথাড়ি মারপিট করে। সেই সাথে আজরাইল ও বুলবুলের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাংচুর যোগ্য চালায় এবং দোকানের ক্যাশ বাক্সে থাকা নগদ দুই লক্ষ্য চল্লিশ হাজার টাকা (দুইটি পুরান উল্কা গাড়ি ক্রয়ের জন্য রাখা টাকা) ও নতুন দুই সেট ব্যাটারি সহ দোকানের বাহিরে থাকা পুরাতন উল্কা গাড়ি ( আনুমানিক মূল্য ১.৫লাখ টাকা) নিয়ে চলেযায়। এই মর্মে আবু সাহীদ ( আজরাইলের বড় ভাই) বাদী হয়ে বাঘা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, আশিকের বেপরোয়া আচরনের বাস্তব উদাহরণ হিসেবে সাম্প্রতিক আড়ানী পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আড়ানী পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বজলু কে হত্যার চেষ্টা(যার মামলা চলোমান), তার অনৈতিক কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে থানায় একাধিক অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগীরা। বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি (তদন্ত) আব্দুল বারী বলেন, মারামারির ঘটনার একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here