বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে নোয়াখালীতে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

0
11
নুরুন্নবী নবীন,নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি ঃ
বিশ্বনবী যরত মুহাম্মদ (স:) কে নিয়ে ভারত বিজেপি নেতা মূখ্যপাত্র নুপুর সম্মার কুটুক্তি মুলক বক্তবের প্রতিবাদে নোয়াখালীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে প্রশাসন।

বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলন নোয়াখালী এর উদ্যোগে নোয়াখালী জেলা জামে মসজিদের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিল শেষে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন কওমি ফাউন্ডেশন নোয়াখালীর চেয়ারম্যান মাওলানা ইয়াসিন আরাফাত, কওমী ফাউন্ডেশন নোয়াখালী এর মহাসচিব মাওলানা জমির উদ্দিন, যুগ্ম মহাসচিব মুসাদ্দেকুল মাওলা, প্রচার সম্পাদক নুর মোহাম্মদ রিপন, হাসান বিন খুরশিদ প্রমুখ।বিক্ষোভকারীরা মহানবীকে নিয়ে কটুক্তিকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ভারতীয় সকল পণ্য বয়কট করার ঘোষণা দেন।

বিক্ষোভ মিছিল থেকে নিম্নোক্ত ৫টি জরুরী ঘোষনা পত্র প্রদান করা হয়। জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাস করা, অনতিবিলম্বে ভারতীয় হাই কমিশনারকে তলব করে প্রতিবাদ জানানো, পুরা মুসলিম বিশ্বের সামনে ভারতের নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করা, অভিযুক্ত বিজিবি সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করা, প্রয়োজন হলে ভারতীয় সকল পণ্য বর্জন করা।

শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর জেলা শহর মাইজদী ও বৃহত্তর নোয়াখালীর প্রধান বাণিজ্যিক শহর চৌমুহনীসহ বিভিন্ন এলাকার মসজিদ, মাদ্রাসা থেকে খন্ড খন্ড মিছিল বের হয়। মিছিল চৌমুহনী রেলগেইট এসে মিলিত হয়ে বাজারের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে কাচারি বাড়ি মসজিদে এসে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।এসময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সতর্ক অবস্থায় ছিলো। পুলিশের পাশাপাশি, র‍্যাব ও সাদা পোষাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী টহল দেয়। নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার মোঃ শহীদুল ইসলাম জানান, তৌহিদ জনতার মিছিল সমাবেশকে কেন্দ্র করে যে কোন প্রকার নাশকতা ঠেকাতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। জেলার গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here