আওয়ামী লীগ

0
10

যে কোন দুর্যোগে আওয়ামী লীগ সব সময় মানুষের পাশে থাকে’ যে কোনো দুর্যোগ-দুর্বিপাকে আওয়ামী লীগ সব সময় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আওয়ামী লীগ গণমানুষের রাজনৈতিক দল বলেই সব পরিস্থিতিতে জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে। সরকারি দল কিংবা বিরোধী দলে মানুষের কল্যাণে কাজ করে। গতকাল সকাল সারে ১০ টায়, ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ত্রাণ উপ কমিটির উদ্যোগে শোক দিবস উপলক্ষে ‘প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রশমনে বঙ্গবন্ধুর দর্শন ও বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক ভিডি কনফারেন্সে বক্তারা এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও ত্রাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন, আফজাল হোসেন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ উপ কমিটির সদস্য অধ্যাপক কামরুজ্জামান। এ সময় আওয়ামী লীগের শিক্ষা সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, কেন্দ্রীয় সদস্য এবিএম রিয়াজুল কবির কাওছার, মারুফা আকতার পপি, সাহাবুদ্দিন ফরাজি, আনিসুর রহমান, কৃষক লীগের সভাপতি সমির চন্দ, সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের আবু আহমেদ মন্নাফী, ডা. দিলীপ রায়, মোর্শেদ কামাল, হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, আকতার হোসেন, উপ কমিটির সদস্য আখলাকুর রহমান মাইনু, হাসিবুর রহমান বিজন, ডা. শেখ ফয়েজ আহমেদ, ড. আমিনুল ইসলাম মাতুব্বর প্রমুখ। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসি এএসএম মাকসুদ কামাল। এ সময় বিভিন্ন হাসপাতালে উন্নত মানের অক্সিজেন কনসেনট্রেটর, চিকিৎসকদের ব্যবহৃত পিপিই, উন্নত মানের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও করোনা প্রতিরোধ সামগ্রী হাইফো নলেজ ক্যানেলা বিতরণ করা হয়। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মুক্তিযুদ্ধের সময় আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে রিলিফ কমিটি গঠন করেছিলেন, ঠিক একইভাবে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা সংকটের পাশাপাশি ঘনীভূত এই দুর্যোগের দিনেও বরাবরের মতো ত্রাণ কমিটি গঠনের মাধ্যমে দেশব্যাপী ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে কোনো দুর্যোগ মোকাবিলা করতে আমরা সক্ষম। সভার সভাপতির ভাষণে বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, অসহায় দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ানো আওয়ামী লীগের সহজাত কার্যক্রম। গণমানুষের দল হিসেবে আওয়ামী লীগ সব সময় মানুষের পাশে থাকে। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা করোনার ধাক্কা যেভাবে মোকাবিলা করছেন, ঠিক তেমনি ষড়যন্ত্রের ধাক্কা সমানভাবে সামলাচ্ছেন। তিনি বলেন, করোনা, ঘুর্ণিঝড় আম্ফান ও বন্যায় দলের ত্রাণ উপ কমিটি যেভাবে আর্তমানবতার পাশে দাঁড়িয়েছে, এর কোনো তুলনা হয় না। আওয়ামী লীগ বিরোধী দল কিংবা সরকারি দলে যে কোনো সময় বিপদে জনগণের পাশে থেকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান তরুণ বয়স থেকে মানুষের দুঃখ কষ্ট দেখেছেন। এর অবসানের জন্য সংগ্রাম লড়াই করেছেন। মানুষের কল্যাণে নিজেকে নিয়েজিত করেছিলেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাক বা না থাক যে কোনো দুর্যোগে পাশে দাঁড়িয়েছে। আর বিএনপি কোন কর্মসূচি নিয়ে পাশে দাঁড়ায়নি। তিনি বলেন, যখন দেশে সিডর হয় সে সময় আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় ছিল না। কিন্তু মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিল। আওয়ামীই একমাত্র রাজনৈতিক দল যারা সব সময় দুর্যোগ প্রবণিত এলাকার মানুষের পাশে থাকে। রহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েয়েছি। আশ্রয় দিয়েছি। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন বলেন, শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে সকল দুর্যোগ মোকাবিলা করতে সক্ষম। প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় সক্ষম হওয়ায় বিশ নেতা ও গণমাধ্যমেও জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা যে কোনো দুর্যোগ মোকাবিলা করতে সক্ষম। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পথ ধরেই তারকন্যার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে। আমরা এগিয়ে যাবোই। সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের চলার পথে অনুপ্রেরণার উৎস। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যার যতটুকু আছে তাই নিয়ে এগিয়ে যাবো। মানুষের পাশে থাকবো। এটাই হোক আমাদের আজকের অঙ্গিকার। ত্রাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী বলেন, করোনার শুরু থেকেই শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা ত্রাণ উপ কমিটির নেতৃত্ববৃন্দ মানুষের পাশে রয়েছেন। বিএনপিসহ দেশের অন্যান্য রাজনৈতিক দল যখন আইসোলেশনে তখন আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। কারণ জাতির পিতার রাজনীতি ছিল মানুষের কল্যাণের জন্য। জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে তার কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনাভাইরাস শুরু থেকে আম্ফান ও বন্যায় আমরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। এছাড়া ভিডিও কনফারেন্সে বহিঃবিশ্ব হইতে যোগদান করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিঙ্গাপুর শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলি রহমত জয় ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মোঃ আমিনুল ইসলাম বুলবুল ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here