মসজিদের নাম করণ নিয়ে বিরোধ।

0
8

 নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্য বাহী শতবছরের ইনাতগঞ্জ পশ্চিম বাজার জামে মসজিদের দীর্ঘ ৩০ বছরের বিরোধ গত ১৮/০৬/২০১৯ ইং সালে ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান সালিশ বিচারক বজলুর রশিদ ও প্রশাসনের উদ্যোগে ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়িতে নবীগঞ্জ উপজেলার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়।

সবার সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয় ৯ জন বিচারক মন্ডলী দিয়ে বোর্ড গঠন করা হয়। বোর্ডে উপস্তিত ছিলেন নবীগঞ্জ থানার সাবেক অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইকবাল হোসেন এবং ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সামছুদ্দিন খান, ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সালিশ বিচারক বজলুর রশিদ, সাবেক চেয়ারম্যান খালেদ আহমেদ পাঠান, সাবেক চেয়ারম্যান মাসুদ আহমেদ জিহাদী, সাবেক চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন ছুবা, সাবেক আওয়ামিলীগ সভাপতি আজিজুর রহমান, উপজেলা জাতীয় পাটির সভাপতি শাহ আবুল খয়ের, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন মিঠু । উভয়পক্ষের কাগজ পত্র পর্যালোচনা করে বোর্ডের রায় জনসম্মুখে প্রকাশ করেন বিচারকেরা ।

কিন্তু রহস্যজনক কারণে ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সামছুদ্দিন খাঁন রায় বাস্তবায়ন না করে ধামাচাপা দিয়ে প্রায় ১৮ মাস অতিবাহিত করছেন,। দাতা পরিবার অতিষ্ঠ হয়ে ১৯/১১/২০ ইং তারিখে জেলা প্রশাসক মহোদয় বরাবর একটি অভিযোগ দেন। সেই অভিযোগ তদন্ত করতে নবীগঞ্জ থানায় অভিযোগ টি আশার পর পর-ই নবীগঞ্জ থানার ওসি মহোদয় ইনাতগঞ্জ ফাড়ির ইনচার্জ সামছুদ্দিন খান কে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় ০৬/১২/২০২০ ইং তারিখে সেই আবেদন ও তিনি তোয়াক্কা না করে নিরবতা পালন করছেন। তিনি বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে আবেদন খানা গুরুত্ব বা অগ্রগতি নেই। এর রহস্য কি? তিনির খুঠির জোর কোথায়? এব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের সু দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন সচেতন মহল। যেকোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের মত গঠনা ঘটতে পারে বলে সচেতন মহল মনে করছেন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here