ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর পৌর নির্বাচনে ফুরফুরে ইমেজে বিএনপি, টিকিট পেতে হাড্ডা হাড্ডি লড়াইয়ে আওয়ামী লীগ।

0
7
 মোঃ ইনছান আলী ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি। ০৪-১২-২০ইং সারাদেশেই আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে ভোটের মাঠ। সম্ভাব্য প্রার্থীরাও জানান দিচ্ছেন তাদের প্রার্থীতার। স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলীয় প্রতীক অন্তর্ভুক্ত করার পর পৌরসভায় জাতীয় প্রতীকে মনোনীত প্রার্থীরা দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। এবারের পৌরসভা নির্বাচনেও থাকছে একই নিয়ম। তারই ধারাবাহিকতায় ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামিলীগ ও বিএনপির মনোনয়ন পেতে মাঠে রয়েছেন বেস কয়েক জন। ইতিমধ্যেই তারা মাঠে ব্যানার ফেস্টুনের মাধ্যমে জানান দিচ্ছেন তাদের প্রার্থীতার এবং দোয়া চেয়ে বেড়াচ্ছেন পৌরসভার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। এলাকা ঘুরে সরেজমিনে দেখা যায় সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ড নিয়ে এবার মেয়র পদে সবচেয়ে বেশী আলোচনায় রয়েছেন কোটচাঁদপুর পৌর আওয়ামীলীগ এর যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ সহিদুজ্জামান সেলিম। ছাত্র রাজনীতি থেকেই তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধু আদর্শের একজন পরীক্ষিত সৈনিক। তিনি বর্তমানে পৌর আঃলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। করোনাকালীন মহামারীতেও তিনি ব্যক্তিগত ভাবে প্রায় কয়েক লক্ষ টাকার ত্রান সামগ্রী পৌর সভার ৯ টি ওয়াডের দুস্ত ও অসহায় মানুষের মাঝে বিতরণ করেছেন। তাছাড়া জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও উপজেলা নির্বাচনে তার দায়িত্বে থাকা পৌরসভার প্রতিটি ভোটকেন্দ্রেই ছিল নৌকার বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়। তাই সবকিছু ছাপিয়ে নৌকার টিকিট পেতে অনেকটাই এগিয়ে আছেন এই তৃনমূল নেতা। এছাড়াও আওয়ামিলীগ এর মনোনয়ন পেতে মরিয়া হয়ে আছেন উপজেলা আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী। দীর্ঘদিন যাবত রাজনীতির মাঠে থাকা এই প্রার্থী সদ্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন না পাওয়ায় দলের সিদ্ধান্তের বাইরে না গিয়ে নৌকার জয় সুনিশ্চিত করতে কাজ করেছেন। তাই এবার নৌকার মাঝি হতে প্রত্যাশা তার একটু বেশি। তিনি আশা করছেন দল তার ত্যাগের মূল্যায়ন করে এবার মনোনয়ন দিবেন। করোনাকালীন সময়ে তার নিজ অর্থায়ন ও সরকার কতৃক বিভিন্ন ত্রান সামগ্রী বিতরন করেছেন। তবে বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম জাহিদ সতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় তার অবস্থান কিছুটা নমনীয় হলেও মেয়র হিসবে পৌরসভার অনেক উন্নয়ন মুলোক কর্মকান্ড অব্যাহত রাখায় বেশ শক্ত অবস্থানে রয়েছে। তিনি আশা করেন সাধারন ভোটারগন আবারও তাকে ভোট দিয়ে মেয়র বানাবেন। এছাড়াও উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি মীর কাশেম আলীর কথাও শোনা যাচ্ছে আওয়ামীলীগ এর মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে। তব বেশ ফুরফুরে ইমেজে বিএনপি দলিয়ো একোক প্রাথী সাবেক পৌর মেয়র বর্তমান পৌর বিএনপির আহ্বায়ক এস কে এম সালাউদ্দিন বুলবুল সিডল। সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে ধানের শীষ প্রতীকের বিজয় আসবেই বলে মনে করছেন তিনি। সাধারণ ভোটাররা জানান স্থানীয় সরকার নির্বাচন হবে দল মত নির্বিশেষে সৎ যোগ্য প্রাথী কে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here