ধান গোলায় তুলতে রোজার মধ্যেও ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষাণ-কৃষাণীরা

0
8

আবু জাহান তালুকদার::সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে হাওরে হাওরে এখন পুরোদমে ধান কাটা, মাড়াই দেওয়া আর ধান শুকানোর কাজ চলছে।

প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কৃষকের পাশাপাশি কৃষাণীরা প্রচণ্ড গরম উপেক্ষা করে রোজার মধ্যেও ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন ধান গোলায় তোলার কাজে। তাদের সহায়তা করছেন কৃষক পরিবারের অন্য লোকজন। উপজেলার হাওরে হাওরে ধান কাটা, প্রতিটি খলা (ধান শুকানোর মাঠ), বাসা-বাড়ির উঠান এবং সড়কে ধান শুকানোর কাজ চলছে বিরামহীনভাবে। কেউ কেউ আবার হোড়া তৈরি করেছেন ধান পাহারা দেয়ার জন্য। সোনার ফসল ঘরে তুলতে ঝড়-ঝঞ্ঝা ব্যতিরেকে রাত্রি যাপন করছেন তারা। এরকম মনোরম দৃশ্য এখন পুরো তাহিরপুরের হাওরাঞ্চলজুড়ে।

করোনা শঙ্কার মাঝেই কষ্টার্জিত পাকা ফসল কাটতে পেরে কৃষকদের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে। মাটিয়ান হাওরের কৃষক বকুল মিয়া জানান, হাওরে এখন পুরোদমে ধান কাটার ধুম পড়েছে। গোলায় ধান তুলতে কৃষক, কৃষাণী ও কৃষি পরিবারের ছোট-বড় সব বয়সী মানুষ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। আশা করা যায় এবার আমরা লাভবান হব। হাওরের আরেক কৃষক আব্দুস সালাম জানান, আমি ১০ কেদার জমি চাষ করেছিলাম। এবছর ফসল ভাল হয়েছে। আমি অর্ধেক জমি কাটা শেষ করেছি। কিছুদিন শুকিয়ে গোলায়ও তুলেছি। আশাকরি এ বছর লাভবান হব। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানাযায় এ বছর উপজেলার ২৩টি হাওরে চলতি মৌসুমে ১৭হাজার ৯৮০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here